RAM কি ? RAM কিভাবে কাজ করে?

কম্পিউটার বা মোবাইল ডিভাইস এর অতান্ত প্রয়োজনীয় ইন্টেগ্রাল কম্পোনেন্ট হল RAM। RAM ছাড়া এগুলো কল্পনা করাই যায় না। এবং এটি এত গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখে যে এর কম বেশি হলে আপনার মোবাইল বা পিসির পারফরমান্স এ সরাসরি প্রভাব পড়বে।

আমরা যখন কোন নতুন ডিভাইস কেনার বিষয়ে ভাবি, তখন আমাদের চিন্তা করতে হয় পারফরমান্স নিয়ে। RAM আমাদের সঠিক ধারনা না থাকায়, অনেক ভুল চিন্তা নিয়ে বাস করি এবং ফলশ্রুতিতে ছোট খাট ঝামেলা পোহাতে হয়। এ জন্য RAM নিয়ে আপনার জ্ঞান বাড়াতে আপনি জানবেনঃ

RAM  কি ? RAM কিভাবে কাজ করে? কত প্রকার ও কি  কি?

আমরা এটিকে সংক্ষিপ্ত এবং সহজে বোঝানোর চেষ্টা করব।খুব বেশি প্রযুক্তিগততার মধ্য যাব না, যাতে আপনি সহজে বুঝতে পারেন।আপনার যদি কম্পিউটার সম্পর্কে ধারনা না থাকে তবুও বুঝতে পারবেন, RAM বিষয়ে।

What Is RAM in bengali
র‍্যাম কি

চলুন শুরু করা যাক সবচেয়ে বেশি জানতে চাওয়া প্রশ্ন দিয়ে।

র‍্যাম কি? (What is RAM in Bangla)

ইংরেজিতে “র‍্যান্ডম এক্সেস মেমোরি র‍্যাম” বা র‍্যাম (RAM) বলা হয়। একটি ডিভাইসের প্রধান মেমরি, যেখানে আপনি এই মুহুর্তে যে প্রোগ্রামগুলি ব্যবহার করছেন তার ডেটা সাময়িকভাবে সংরক্ষণ করা হয়। এবং এটি এক ধরণের মেমরি যা আপনি যে কোনও ডিভাইসে , ডেস্কটপ থেকে মোবাইল ফোনে ব্যাবহার করা হয়। র‍্যাম এর স্পেশাল দুটি বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা এটি অন্যান্য ধরণের স্টোরেজ থেকে আলাদা করে। ডাটা রিডিং এবং ট্রান্সফার এর জন্য এটি দারুণ গতি সম্পন্ন। অন্যদিকে ডেটা কেবল সাময়িক সময়ের জন্য সংরক্ষণ করে রাখে। এর মানে হল যে আপনি যখনি আপনার কম্পিউটার বা মোবাইল পুনরায় চালু করেন বা বন্ধ করেন, তখন স্বাভাবিক ব্যাপার হল RAM- এ সংরক্ষিত ডেটা নষ্ট হয়ে যায়। কম্পিউটার বা মোবাইল ডিভাইস এ র‍্যাম ব্যাবহার করা হয়, মূলত এপ্লিকেশন বা সফটওয়্যার পরিচালনা করার জন্য। র‍্যাম এর ক্ষমতার উপর নিরভর করে কত স্মুথলি আপনার ফোন বা কম্পিউটার চলবে। এ জন্য আপনার যতবেশি র‍্যাম আছে, একই সময়ে আপনি তত বেশি এপ্লিকেশন ব্যাবহার করতে পারেন এবং তাই র‍্যাম এর গুরুত্ব বেশি। কারণ পর্যাপ্ত র‍্যাম না থাকলে  ডিভাইস এর স্পীড কমে যেতে পারে। কম্পিউটার এর র‍্যাম মূলত মাদারবোর্ডের সাথে সরাসরি সংযুক্ত থাকে। এবং আপনার ইচ্ছা মত পরিবর্তন মানে বাড়াতে কিংবা কমাতে পারবেন। কিন্তু মোবাইল ফোন এর র‍্যাম গুলো এখন পর্যন্ত বাড়ানো বা কমানোর সুযোগ রাখা হয় না।

র‍্যাম কত প্রকার ও কত ধরনের র‍্যাম আছে?

র‍্যাম দুই প্রকার।  ডিডিআর (ডাবল ডেটা রেট) টাইপ মেমোরিগুলি ক্লকওয়াইজ চক্রের মত করে ঘুরে দুটি অপারেশন সম্পন্ন হওয়ার মাধ্যমে কাজ করে। যা মূলত এসডিআর (সিঙ্গেল ডেটা রেট) টাইপ এর মত নয়, যা কেবল একটি রীড এবং রাইট অপারেশন চালায়। DDR3 এবং DDR4 উভয় একইভাবে কাজ করার পদ্ধতি, সেই সাথে DDR5 ্যা শীঘ্রই মার্কেটে আসতেছে বলে জানা গেছে। যাহোক, আপনি যতবেশি আধুনিক বা সর্বশেষ মান ব্যাবহার করবেন তত বেশি স্পীড পাবেন আপনার ডিভাইসে। অতএব, যদি আপনি একটি উচ্চতর কর্মক্ষমতা চান, এটি আপডেট করা ভালো ব্যাপার হতে পারে। যাইহোক, একটি সমস্যা আছে, এবং সেটা হল আপনি যে র‍্যাম স্ট্যান্ডার্ডটি ব্যাবহার করবেন সেটি আপনার ডিভাইস এর মাদারবোর্ড এ সাপোর্ট করে কি না চেক করে নিবেন। উদাহরণস্বরূপ, যদি আপনার কাছে একটি পুরানো কম্পিউটার থাকে যা একবার DDR3 RAM ব্যাবহার করা হয়েছে। কিন্তু আপনি যদি এখন র‍্যাম আপগ্রেড করতে চান তাহলে, আপনার বর্তমান মাদারবোর্ড আপগ্রেডেড সর্বশেষ মডেলের র‍্যাম সমর্থন না করার সম্ভাবনা বেশি। এ জন্য আপনার নতুন মাদার বোর্ড কেনার প্রয়োজন হতে পারে।

Net Zero Meaning In bengali

RAM র‍্যাম কেন ব্যাবহার করা হয়?

আপনার কম্পিউটার বা মোবাইল শুধুমাত্র হার্ডডিস্ক ব্যবহার করে সমস্ত ক্রিয়া সম্পাদন করে না, কারণ যদি তা করে তবে সেগুলি কার্যকর করতে খুব বেশি সময় লাগবে। এই কারণে, এই আরও তাত্ক্ষণিক কাজগুলি করার জন্য অনেক দ্রুত ধরণের মেমরি ব্যবহার করা হয় এবং এটি সিপিইউ নির্দেশাবলী বা অ্যাপ্লিকেশনগুলির ক্রমাগত প্রয়োজনীয় ডেটা সংরক্ষণের জন্য দায়ী । কম্পিউটার বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত অথবা নতুন চালু না হওয়া পর্যন্ত এই ডেটা র‍্যামে থাকে।